Porjotonlipi

রোড ট্রিপ টিপস

প্রতিদিনের একঘেয়ে জীবন যাপন থেকে বের হয়ে কার না ইচ্ছে করে একটু ঘুরতে যেতে। আর তাই ইচ্ছে হলেই ভ্রমণ, হতে পারে যখন তখন। যাদের গাড়ি আছে তারা চাইলেই দূরে কোথাও ঘুরে আসতে পারেন। রোড ট্রিপে যদি দূরবর্তী কোথাও যাবার প্ল্যান করেন, তাহলে গাড়ির রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবহারজনিত কিছু ব্যাপারেও সতর্ক থাকতে হবে। কারণ খেয়াল রাখতে হবে ভ্রমণ যাতে নির্বিঘ্ন এবং নিরাপদ হয়। ভ্রমণের সময় অন্যান্য সদস্যেদের সাথে সাথে গাড়িও থাকবে নিরাপদে। রোড ট্রিপ টিপস হিসেবে আসুন জেনে রাখি রোড ট্রিপে যাওয়ার কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

রোমাঞ্চকর ভ্রমণে রোড ট্রিপ টিপস

নিরাপত্তা:

গাড়ি নিয়ে স্বপরিবারে বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যান করার আগে অবশ্যই নিরাপত্তার ব্যপারটি মাথায় রাখতে হবে। পরিবারের নিরাপত্তায় সবার সাথে ফোন এবং ফোনে রিচার্জ করে নিলে ভাল হয়। দূরে ভ্রমনে যেয়ে একা না ঘুরে একসাথে ঘোরা ভাল। ঘন জঙ্গল অথবা গভীর পুকুরে না যাওয়াই ভাল।

কাগজপত্র:

দুরের ভ্রমনে যে বিষয়টি লক্ষ্য রাখতে হবে তা হলো গাড়ির কাগজপত্র সাথে নিয়ে নিন। নিয়মিত হালনাগাদ করা না থাকলে অবশ্যই করিয়ে নেওয়া ভাল। এছাড়া ভোটার আইডি কার্ড/ ফটোকপি অথবা ভিজিটিং কার্ড সাথে রাখবেন।

গাড়ির পরিষ্কার:

আপনার গাড়িটিকে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। আর পরিষ্কারক দ্রব্য যেমন- ব্রাশ, ছোট বালতি, হোস পাইপ ইত্যাদি গাড়িতে সঙ্গে নিয়ে নেওয়া যায়। গাড়ি যদি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন হয় তাহলে আপনার ভ্রমণও হবে আনন্দদায়ক।

গাড়ির পার্টস রিচেক:

দূরবর্তী ভ্রমণের আগে অবশ্যই ভাল কোন সার্ভিস সেন্টার থেকে একবার গাড়ির সব পার্টস চেক করিয়ে নিন। কোন পার্টসের যদি কোন সমস্যা থাকে তাহলে; পার্টস ঠিক করিয়ে, একবার গাড়ি চালিয়ে পরীক্ষা করে নিবেন আপনার গাড়ির সব যন্ত্রাংশ সঠিকভাবে কাজ করছে কিনা। ত্রুটিপূর্ণ যন্ত্রাংশের কারণে ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

তেল ও পর্যাপ্ত পেট্রোল:

আপনার গাড়ির তেল বা পেট্রোল চেক না করে দূরে ভ্রমনে যাওয়া কখনোই উচিৎ না। আর ভ্রমণে বের হবার আগে, আপনার ভ্রমণ পথে কোথায় কোথায় পেট্রল পাম্প/ সি এন জি ষ্টেশন আছে তাও একবার মোবাইলে ম্যাপ থেকে দেখে নেবেন। তবে বের হবার আগে যতটুকু পরিমান সম্ভব গাড়ির তেল, পেট্রোল ভর্তি করে নেওয়া উচিৎ।

গাড়ির কভার, স্পেয়ার টায়ার:

যাত্রার সময় অবশ্যই সাথে গাড়ির কভার, এক্সট্রা চাকা, টুল বক্স ইত্যাদি রাখা উচিৎ। এতে করে যেকোন সময়ে গাড়ির চাকা পাংচার হয়ে গেলে চাকা ঠিক করে নিতে পারবেন। এর পাশাপাশি রাস্তায় টুকটাক সমস্যা নিজেই সেরে নিতে পারেন।

ব্যাটারি:

অনেক সময় গাড়ির ব্যাটারি ডাউন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আর ব্যাটারি ডাউন হয়ে ভ্রমণে যাতে বিঘ্ন না ঘটে তাই গাড়িতে এক্সট্রা ব্যাটারি অবশ্যই সঙ্গে রাখা ভাল।

ট্রাফিক আইন:

গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে অবশ্যই আইন মেনে গাড়ি চালাবেন । কখনোই ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করে বা নির্দিষ্ট লেন ব্যতীত অন্য লেন দিয়ে গাড়ি চালানো উচিৎ না।

রোড ট্রিপ এ সঙ্গে যা যা নিবেন

প্রয়োজনীয় অর্থ:

টাকা পয়সা নিতে হয়ত কেউই ভোলেন না। কিন্তু দূরবর্তী ভ্রমনের আগে খরচের একটা খসরা হিসেব করে নিবেন। সাথে এক্সট্রা কিছু টাকা নিয়ে নিবেন যাতে বিপদে পড়লে কাজে লাগে। কতটুকু তেল খরচ হবে, সে হিসেবও এর মধ্যে রাখবেন।

ফার্স্ট এইড বক্স:

যেকোনো জায়গায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে অবশ্যই ফার্স্ট এইড বক্স গাড়িতে রাখা উচিৎ। যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনায় প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া যায়। সাথে বমির ওষুধ এবং স্যালাইনও রাখতে পারেন।

শুকনা ও তরল খাবার:

কিছু খাবার সঙ্গে কিনে নেওয়া ভাল। শুকনা খাবারের সঙ্গে তরল খাবারও কিনে নেওয়া উচিৎ। সবথেকে ভাল হয় বাসা থেকে রান্না করে হটপটে নিয়ে গেলে।

মশা ও পোকামাকড় থেকে সাবধান:

লক্ষ্য রাখতে হবে মশার উপদ্রব থেকে যেন সবাই সুরক্ষিত থাকে। তাই মশার স্প্রে , ওষুধ ,মশার ব্যাট অথবা মশারির ব্যবস্থা সঙ্গে রাখতে হবে। এছাড়াও অন্যান্য পোকামাকড়ের ওষুধ, ওডোমস সঙ্গে রাখা ভাল।

অন্যান্য:

মোবাইল ফোনের চার্জার , ক্যামেরা বা ল্যাপটপের চার্জার , মোবাইলের পোর্ট ইত্যাদি সাথে নিয়ে নিতে ভুলবেন না। টর্চ লাইট, ছাতা, রাবারের জুতা, টাওয়েল, নেক পিলো, এক্সট্রা ব্যাগ ইত্যাদি নিয়ে নিবেন সাথে।

দূরের ভ্রমণে কিছু স্মার্ট টিপস:

১। একটানা রাস্তায় গাড়ি না চালিয়ে মাঝে মাঝে ব্রেক দিয়ে গাড়ি চালানো উচিৎ।
২। খুব ভোরে বাসা থেকে বের হয়ে গেলে আর রাস্তায় যানজটে পরতে হয়না তাই ভোরেই বের হওয়া ভাল।
৩। পেট্রোল বা জ্বালানি আগের দিন নিয়ে নেওয়া উচিৎ।
৪। ভ্রমণের আগের দিন যিনি গাড়ি ড্রাইভ করবেন তার পর্যাপ্ত বিশ্রাম করে নেওয়া উচিৎ।

আশা করছি রোড ট্রিপ টিপস  নিয়ে আপনাদের কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে আমাদের জানাতে পারেন।

কন্টেন্ট রাইটারঃ শুক্তি বিশ্বাস

-করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় সকল ভ্রমণ কেন্দ্রগুলো বন্ধ রয়েছে। এই মহামারীর সময়ে অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন, নিরাপদে থাকুন।  

Porjotonlipi

Add comment