যতই দিন যাচ্ছে, বর্ষা কিন্তু ঘনিয়ে আসছে। আর বর্ষা মানেই ক্ষেপাটে ভ্রমণপাগলদের বেরিয়ে পড়ার সময়। আর সেই চিন্তা মাথায় রেখেই পর্যটনলিপি আজ আপনাদের সামনে নিয়ে এসেছে ‘রেমা-কালেংগা রিসার্ভ ফরেস্ট’। এটি বাংলাদেশের সিলেটে অবস্থিত।

Rema2

ট্রেনে করে গেলে আপনাকে নামতে হবে শায়েস্তাগঞ্জ স্টেশনে। ট্রেন থেকে নেমে স্টেশন এর বাইরে রেমা-কালেঙ্গাগামী সি.এন.জি চালিত অটোরিক্সা পেয়ে যাবেন। আর যাত্রার শুরুতেই চালকের সাথে কথা বলে নিবেন যে আপনি ‘কালেঙ্গা’ নাকি ‘রেমা’ যেতে চান। কেননা আপনাকে মনে রাখতে হবে যে রেমা-কালেঙ্গা একসাথে একটি বন হলেও ‘রেমা’ আর ‘কালিঙ্গা’ নাম দুটো মুলত বনের দুটি প্রান্ত নির্দেশ করে। দুই দিক থেকেই আপনি বনে প্রবেশ করতে পারবেন। কালেঙ্গাতে মুলত বেশি ট্রাভেলারের সমাগম ঘটে।

Rema3

আর আপনি যদি রেমা দিয়ে প্রবেশ করতে চান তাহলে অটোরিক্সা আপনাকে খোয়াই নদীর খেয়াঘাটে নামিয়ে দিবে। খেয়া (নৌকা) পার হয়ে চা বাগান আর আকাবাকা টিলার মধ্য দিয়ে প্রায় ৩কি.মি হাঁটার পরে বনের ধারে পৌঁছবেন। বনের মধ্যে একটাই প্রধান ট্রেইল। ট্রেইল ধরে দেড় ঘন্টা হাটলে কালেঙ্গা থেকে আবার বের হতে পারবেন। (রেমা কালিঙ্গা এখনো অতটা পরিচিত নয় বলে অনেক ক্ষেত্রেই আপনাকে স্থানীয়দের পরামর্শের উপর ভিত্তি করে চলতে হবে)।

Rema1

তবে মনে রাখবেন চলতি পথে অনেক বণ্য প্রানী ও পাখি আপনাদের চোখে পড়বে। আর এই বনে অনেক প্রজাতির পাখি রয়েছে। আপনি যেন তাদের কোন ক্ষতির কারণ হয়ে না দাঁড়ান সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে। আর কোনভাবেই বনের অভ্যন্তরের পরিবেশ নষ্ট করবেন না, যা আমাদের প্রকৃতি ও পর্যটন শিল্পের জন্য হুমকি স্বরূপ। একমাত্র পর্যটকদের সচেতনতাই পারে এই বিপর্যয় থেকে প্রকৃতিকে রক্ষা করতে।

Share.

Leave A Reply