আজ আমরা আপনাদের নিয়ে যাব বরিশালের বিখ্যাত এবং অপার সৌন্দর্যের নিদর্শন ‘বায়তুল আমান জামে মসজিদ’, যা অনেকের কাছে ‘গুঠিয়া মসজিদ’ নামেও পরিচিত। এটি বরিশাল শহরের অদূরে গুঠিয়া নামক স্থানে অবস্থিত। আপনি বরিশাল শহর থেকে অটোরিক্সা কিংবা বাসে চেপেই চলে যেতে পারবেন সেইখানে। যেতে আপনার সময় লাগবে কমবেশি ৩০ মিনিট সময় এবং বাস ভাড়া ২০ – ৩০ টাকা।

Guthia-Mosque1
অসাধারণ সুন্দর এই মসজিদটি ১৪ একর জায়গার উপর নির্মিত। বায়তুল আমান জামে মসজিদ কমপ্লেক্সের নকশা এশিয়া, ইউরোপ এবং মধ্য প্রাচ্যের অনেক বিখ্যাত মসজিদ থেকে নেয়া হয়েছে। এই মসজিদটি নির্মাণের সময় অনেক ব্যয়বহুল মার্বেল পাথর ব্যবহার করা হয়েছে। এই মসজিদ কমপ্লেক্সে একটি সুবিশাল ঈদগাহ, একটি কবরস্থান, তিনটি লেক, একটি মাদ্রাসা এবং একটি এতিমখানাও রয়েছে। এই মসজিদের ৬০ টি গম্বুজ ও একটি মিনার রয়েছে, যার উচ্চতা ৫৮ মিটার।

Guthia-Mosque2

এই মসজিদের ধারণ ক্ষমতা প্রায় ২০ হাজার। ২০০৬ সালের ২০ অক্টোবর জনাব সরফুদ্দিন আহমেদ এই মসজিদটি প্রতিষ্ঠা করেন। এই মসজিদ সম্পর্কে আপনাদের কোন মতামত বা নতুন কোন তথ্য জানা থাকলে আমাদের জানাতে পারেন।  আশা করছি আপনারা আমাদের সাথেই থাকবেন এবং অবশ্যই সুবিধাজনক সময়ে নিজ চোখে দেখে আসবেন অসম্ভব সুন্দর ‘বায়তুল আমান জামে মসজিদ’ টি।

Share.

Leave A Reply